আল কোরআনের ১৪ পারায় আল্লাহ যা যা বলেছেন।।Bangla qurun

আল কোরআনের ১৪ পারায় আল্লাহ্‌ যা বলেছেন। তা নিচে বর্ণনা করা হল।

Bangla qurun

লূৎ ও শোয়েব নবীর আমলে দুটি অলোকিক ঘটনা ঘটিল। একটি লূৎ এর কন্যাদের ঘরে জালেমদের প্রমত্তে নেশায় থাকা অবস্থায় জনাকীর্ণ এই রস্তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় এক প্রচণ্ড শব্দ আসিয়া আল্লাহ্‌র ইচ্ছায় জনপদের উদ্ধস্থ পুরা অর্ধেক অংশ অধঃস্থ করিয়া দিলেন এবং তাহাদের উপর প্রস্তর সমূহ বর্ষণ করা হইল। এই ঘটনায় কয়েকটি নিদর্শন রহিয়াছে। গভীর দৃষ্টি সম্পন্ন লোকদের জন্যে বহু উপদেশ রহিয়াছে। আর শোয়েবের আরববাসী উম্মতেরা জালেম ছিল। হিজরের অধিবাসীরা পয়গম্বরদেরকে মিথ্যাবাদী সাব্বস্থ করিলেন। উভয় জনপদই প্রকাশ্য রাস্তার উপরে ছিল। উহা হইতেও তাহারা মুখ ফিরাইয়া রহিল। পরে তাহারা পাহাড কাটিয়া কাটিয়া গৃহ নির্মাণ করিত যাহাতে নিরাপদে থাকিতে পারে। অতঃপর প্রাতঃকালে  বিকট শব্দ আসিয়া তাহাদিগকে আক্রমন করিলে তাহাদের কর্মকুশলতা কোনই কাজে আসিল না। অতএব আমাদের উচিত উত্তম ভাবে আল্লাহ্‌ তায়ালার ক্ষমা প্রার্থনা করা। উপদেশ দেওয়া হইয়াছে আমরা জেনো নামাজ আদায় কারীদের অন্তর্ভুক্ত থাকি।

আল্লাহ্‌ তায়ালা আমাদের কে ভিবিন্ন ভাবে, অছিলায়, খেত খামার, কলকারখানা ইত্যাদি হইতে আমাদের রিজিকের ব্যাবস্থা করেছেন- এজন্নে তিনি আমাদের কে সৃষ্টি করেছেন উপসনার জন্য। পশুপাখী সৃষ্টি করেছেন আমাদের গোসত, আমাদের কিছু পরিবহন, শিতবস্ত্র ইত্যাদি প্রয়েজনের জন্যে।  আসমান থেকে পানি দিয়েছেন ফসল করার জন্যে, পান করিয়া বেঁচে থাকার জন্য। তবে কেন আমরা আল্লাহ্‌র শুক্রিয়া আদায় করবো না? আমাদের জন্য বশিভুত করিয়াছেন রাত- দিন, ও চন্দ্র ও সূর্য কে। নিঃ সন্দেহে আলেম দের জন্য  এ গুলিই আল্লাহ্‌র মহিমার প্রমাণ। আল্লাহ্‌ সমস্ত পাপ পুণ্যের খবর রাখেন। যারা সৎ কাজ করে তাদের জন্য দনিয়া ও আখেরাত উভয়ই সম্মান জনক। কাফেররা নিশ্চয় আল্লাহ্‌ সর্ব শক্তিমান জানিনাও মিথ্যা কথা বলে ও কাফের থাকে। যদি নবিগন আল্লাহ্‌র হেদায়াতের বানি লইয়া দুনিয়ায় না আসিতেন তবে এখনও কন্যা সন্তান জন্ম লাভ করার পরে মারিয়া ফেলত কিন্তু যখনি সময় আসিয়া পড়িবে তখন এক পা –  সরিতে পারিবে না।

আমি মনে করি ৫০/ ৮০/১০০/১২৫ বছর কালে মানুষের প্রত্যেকের জন্য এক রকম কিয়ামত আসিয়া পড়ে। কারণ মরন হওয়ার সাথে সাথেই কবরে ভালমন্দ কর্মের জন্য শাস্তি-শান্তি ভোগ করিতে শুরু করে প্রত্যেকটি জিন ,ইঞ্ছান। কতিপয় নবীগণকে আল্লাহ্‌ কিতাব সহ পাঠিয়েছেন। আর ওহী পাঠিয়েছেন সকল নবীগণকে।

কাফেররা আল্লাহ্‌র নিয়ামত সমূহকে ছিনিয়াও চিনে না, জানিইয়াও জানেনা। ওরা অস্বীকার করে। নিশ্চয় কিয়ামতের দিন সকলকে নিজ নিজ কাজ কর্মের জন্যে আল্লাহ্‌ হিসাব তলব করিবেন। আর আপনার নিজের অঙ্গ পতঙ্গ গুলো সাক্ষী দিবে।

তাই দুনিয়ায় আলেম বা ইমান্দারদের সাথে সাবধানে চলাফেরা করা উচিৎ।

সে দিন নিজেই নিজের সমর্থনে কথা বলিতে থাকবে। সবাই তার কর্মের ফলাফল পাইবে। নিশ্চয় আল্লাহ্‌ তায়ালা তওবা কবুল কারি, অতিশয় ক্ষমাশীল,পরম করুণাময়। আল্লাহ্‌ সুপথগামী ,কুপথগামী উভয়কেই উওম রুপে জানেন।